বাকৃবিতে ব্যক্তিগত বিষয়কে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ
৭ অক্টোবর, ২০১২ ১১:৫১ পূর্বাহ্ণ

শনিবার রাতে একান্ত ব্যক্তিগত বিষয়কে কেন্দ্র করে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে  ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত ১০ ছাত্রলীগ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

জানা যায়, বাকৃবির কৃষি অনুষদের প্রথম বর্ষের এক ছাত্রীকে পছন্দ করেন বাকৃবি ছাত্রলীগের সদস্য সানী এবং বঙ্গবন্ধু হলের কৃষি প্রকৌশল ও কারিগরি অনুষদের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ছাত্রলীগ কর্মী বিপুল।

একে কেন্দ্র করে বিপুল ও সানীর মধ্যে শত্রুতার সৃষ্টি হয়। শনিবার দুপুরে জব্বার মোড়ে এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে বিপুল ও তার সহযোগীরা মিলে সানীকে পেটায়।

ওই ঘটনার জেরে সন্ধ্যায় কেআর মাকের্টে বিপুলের সহযোগী কৃষি অর্থনীতি ও গ্রামীণ সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের ২য় বর্ষের ছাত্র ও বঙ্গবন্ধু হল শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অনুপকে বেধড়ক পেটায় সানী ও তার সহযোগীরা।

পরে অনুপকে দ্রুত ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ খবর ক্যাম্পাসে ছড়িয়ে পড়লে রাত সাড়ে সাতটার দিকে বাকৃবি রেল লাইনের পূর্ব ও পশ্চিম পাশে যথাক্রমে সানী ও বিপুল গ্রুপ অবস্থান নেয়।

এসময় উভয় গ্রুপের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা রামদা, লাঠি, রড, হকিষ্টিক নিয়ে পরস্পরকে ধাওয়া করে।

এতে উভয় গ্রুপের কমপক্ষে ১০ ছাত্রলীগ নেতা-কর্মী আহত হন। আহতদের বিশ্ববিদ্যালয়ের হেলথ কেয়ার সেন্টার ও ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হলে প্রায় এক ঘন্টা পর রাত সাড়ে আটটার দিকে পরিন্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

প্রক্টর প্রফেসর ড. এমএ সালাম বলেন, ক্যাম্পাসের পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক। ক্যাম্পাসে শিক্ষার সুুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে এবং ওই ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ময়মনসিংহ কোতোয়ালী থানার ওসি গোলাম সারওয়ার বলেন, ক্যাম্পাসের পরিস্থিতি এখন শান্ত। পুলিশ মোতায়েন আছে।

পাঠকের মন্তব্য