নীলফামারীতে হাসপাতালে নববধুর লাশ ফেলে স্বামীর পলায়ন
১৬ অক্টোবর, ২০১২ ৮:৪২ অপরাহ্ণ

নববধুর লাশ হাসপাতালে ফেলে পালিয়েছে স্বামী। আজমঙ্গলবার সকালে নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালের এ ঘটনায় মুন্নী (১৮) নামে ওই নববধুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে নীলফামারী সদর উপজেলার টুপামারী ইউনিয়নের কিসামত দোগাছি গ্রামের মৃত নুরুজ্জামানের মেয়ে। মুন্নীর বড়ভাই জুয়েল ইসলাম জানান, ছয়মাস আগে সদর উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের সাথিপাড়ার সিওর আলীর ছেলে রাশেদুজ্জামান (২৪)-এর সাথে তার বোনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর অন্য একটি মেয়ের সাথে রাশেদুজ্জামানের সম্পর্কের কথা জানতে পারেমুন্নী। এতে মুন্নী বাধা দিলে প্রায়ই মুন্নীকে মারধর করতো রাশেদুজ্জামান। তিনি অভিযোগ করেন, ঘটনার দিন মুন্নীকে নির্যাতন করে তার মুখে বিষ ঢেলে দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নীলফামারী সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নুরুজ্জামান জানান, নিহতের স্বজনরা অভিযোগ করছে পরিকল্পিতভাবে মুন্নীকে হত্যা করা হয়েছে। ‌এ কারণে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।এ ঘটনায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে ।

পাঠকের মন্তব্য